1. admin@71bangla24.com : admin :
বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪:৫৫ অপরাহ্ন
বিজ্ঞাপন:
সারাদেশে জেলা/উপজেলা প্রতিনিধি নেওয়া হবে।আগ্রহীরা যোগাযোগ করবেন ০১৭৭৮৬২০৬৯০ অথবা ০১৭১২৯৫৪৮৮৩ আপনার প্রতিষ্ঠানকে সারা বিশ্বে পরিচিত করতে বিজ্ঞাপন দিন।বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন-০১৭৭৮৬২০৬৯০
শিরোনামঃ
“হিরণময়” আনিসুর রহমান ভ্রাম্যমান আদালতে অবৈধ বালু উত্তোলনের ড্রেজার ধ্বংস করলেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) মারিয়া হক। শেখ হাসিনার জন্মদিনে আব্দুর রহমান এর শুভেচ্ছা। অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের মৃত্যুতে আব্দুর রহমান এর শোক। জামালপুরে রাসেল হত্যা মামলায় ২ জনের মৃত্যু দন্ড ও ৭ জনের যাবজ্জীবন জামালপুর শহরে সম্মিলিত ব্যবসায়ী জনতা ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে মানববন্ধন জামালপুর শহরের চালাপাড়ায় একজনের রহস্যজনক মৃত্যু, লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ জামালপুর জেলা শাখার বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত সালথায় আলেমদের সাথে ফরিদপুর জেলা প্রশাসকের মত বিনিময়। ফরিদপুরে লাইসেন্স বিহীন কোন ক্লিনিক থাকবে না- যুগ্ন সচিব উম্মে সালমা তানজিয়া।
add

“আগামীর রাজনীতির জন্য অশনিসংকেত গুলো” – ওবায়দুর রহমান

  • মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই, ২০২০
  • ৩৪৩ বার পড়া হয়েছে

আওয়ামী লীগের ডাক সাইটে নেতাদের ক্ষমতা খর্ব করে মিড লেবেলের নেতাদের ক্ষমতার মুল মঞ্চে আগমন এবং ব্যবসায়ী আমলাদের একচেটিয়া প্রধান্য দেওয়ায় অধিকাংশ সিনিয়র নেতারা চুপচাপ হয়ে গেছে বলে প্রতিয়মান হচ্ছে।

যারা নেতৃত্বে আছে তাদের প্রশাসনের উপর প্রভাব খাটানোর মতো সম্মোহনী শক্তি বা সামর্থ্য কোনটাই নেই। আঞ্চলিক নেতাকে দিয়ে জাতীয় পর্যায়ে কাজ করানো যায় না। মতিয়া চৌধুরী, আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, শেখ সেলিম, মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ, শেখ হেলাউদ্দিন, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিমদের মতো নেতাদের সাইড লাইনে বসিয়ে দিয়ে মন্ত্রী সভার অলংকার ক্ষুন্ন হয়েছে বলে রাজনীতি বিশ্লেষকদের অভিমত। এরা থাকলে এদের সামনে আমলারা ও সাংবাদিকরা সমিহ করে কথা বলতেন। ও কথা কমই বলতে পারতেন। নিকট ভবিষৎ এ আওয়ামিলীগ আরোও নেতৃত্বের সংকটে পড়বে বলে মনে হয়। কারণ নেতৃত্ব তৈরি হওয়ার পাইপ লাইনগুলো একেএকে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। ছাত্র রাজনীতি থেকে এখন গুনগত মানসম্পন্ন নেতৃত্ব উঠে আসছে না।

কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় সমূহে মেধা ও জ্ঞান ভিত্তিক ছাত্ররাজনীতি অনেকটাই নেই বললেই চলে। ছাত্রছাত্রী সংসদ নির্বাচন হয়না বহু বছর যাবত। তারপরও যেটুকু রাজনীতি আছে সেটুকুও ক্ষমতাশালীদের লেজুড়বৃত্তিতে ব্যস্ত তারা। অমোক-তমোক ভাইয়ের পরিচয়ে পরিচিত দিয়েই তারা তাদের রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ নষ্ট করে ফেলেছেন। আবার ৮০-৯০ দশকের অনেক ছাত্রনেতাকে যতাযথ পদায়ন করা হয়নাই। অনেকে অভিমানে সরে গেছে রাজনীতি থেকে। ফলে সেই জায়গাগুলো চলে গেছে আমলা ব্যবসায়ীদের নিকট। আর ব্যবসায়ী আমলারা রাজনীতিতে এসে তৈরি করেছে আপন বলয়। আর এই বলয় তৈরি করতে গিয়ে তারা দলের মধ্যে বিভাজনের রাজনীতি শুরু করেছে।

অনুপ্রবেশ ঘটিয়েছে সুবিধাবাদী লুটেরা চক্রের। বর্তমান পরিস্হিতি সৃষ্টিতে সহায়ক ভূমিকা রাখছে। এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার সততা, মেধা ও পরিশ্রমকে হেয় করার খেলায় মত্ত হয়েছে ঐ অপরাধী চক্র। যা দেশের জন্য দেশের মানুষের জন্য অশনিসংকেত বলেই মনে হচ্ছে।

ওবায়দুর রহমান
১৪/০৭/২০২০
গাজিপুর।

add

ভালো লাগলে এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই কেটাগরির আরো খবর

বাংলাদেশে কোরোনা

সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
২,৯৪৯
৩৭
২,৮৬২
১৩,৪৮৮
সর্বমোট
১৭৮,৪৪৩
২,২৭৫
৮৬,৪০৬
৯০৪,৫৮৪
add
© 71bangla24 2020 All rights reserved. কারিগরি সহায়তা: WhatHppen
Theme Customized By BreakingNews