1. admin@71bangla24.com : admin :
বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:৩২ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞাপন:
সারাদেশে জেলা/উপজেলা প্রতিনিধি নেওয়া হবে।আগ্রহীরা যোগাযোগ করবেন ০১৭৭৮৬২০৬৯০ অথবা ০১৭১২৯৫৪৮৮৩ আপনার প্রতিষ্ঠানকে সারা বিশ্বে পরিচিত করতে বিজ্ঞাপন দিন।বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন-০১৭৭৮৬২০৬৯০
শিরোনামঃ
“হিরণময়” আনিসুর রহমান ভ্রাম্যমান আদালতে অবৈধ বালু উত্তোলনের ড্রেজার ধ্বংস করলেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) মারিয়া হক। শেখ হাসিনার জন্মদিনে আব্দুর রহমান এর শুভেচ্ছা। অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের মৃত্যুতে আব্দুর রহমান এর শোক। জামালপুরে রাসেল হত্যা মামলায় ২ জনের মৃত্যু দন্ড ও ৭ জনের যাবজ্জীবন জামালপুর শহরে সম্মিলিত ব্যবসায়ী জনতা ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে মানববন্ধন জামালপুর শহরের চালাপাড়ায় একজনের রহস্যজনক মৃত্যু, লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ জামালপুর জেলা শাখার বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত সালথায় আলেমদের সাথে ফরিদপুর জেলা প্রশাসকের মত বিনিময়। ফরিদপুরে লাইসেন্স বিহীন কোন ক্লিনিক থাকবে না- যুগ্ন সচিব উম্মে সালমা তানজিয়া।
add

মজা আর বাস্তবতা দুটোই।

  • বুধবার, ১৯ আগস্ট, ২০২০
  • ৮৮ বার পড়া হয়েছে

এ কে এম শামীম হাসানঃ

“আমি পারতপক্ষে পুলিশদের এড়িয়ে চলি। আর মেলামেশা তো প্রশ্নই আসে না” এক নিঃশ্বাসে কথাগুলো বলে তিনি আমার দিকে তাকালেন। তাকানোর সে ভঙ্গিমায় মনে হলো আমি তার কথায় যদি একটুও আঘাত পাই বা রেগে যাই তাতে ওনার বিশেষ উদ্দেশ্য পূরণ হয়।

আবার এমনো হতে পারে উনি হয়ত আশা করেছিলেন এর প্রতিত্তোরে আমি জিগেস করব কেন তিনি পুলিশদেরকে পছন্দ করেন না,কেন তিনি তাদের সাথে মেলামেশা করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন না কিংবা কেন তার এই পেশাটির প্রতি এত নেতিবাচক ধারণা ?

তাকে হতাশ করে দিয়ে আমি না অপ্রস্তুত হলাম,না কোন প্রশ্ন করলাম। সামনে রাখা ধোয়া ওঠা চা ক্রমশ ঠান্ডা হচ্ছিলো। সেটিতেই একটা আয়েশী চুমুক দিয়ে তার দিকে খুব শান্ত ভঙ্গিতে তাকিয়ে বললাম পাবলিক যখন আমাদের এড়িয়ে চলে,বন্ধুত্ব করতে চায়না, তাতে আমাদের মন খারাপ হয়না বরং আমাদের অনেক সুবিধা হয়।

এবারে দেখলাম উনি সন্দেহের তীক্ষ্ণ দৃষ্টি নিয়ে আমার দিকে তাকালেন। ভ্রু দুইটি উঁচিয়ে জানতে চাইলেন,

কেন?

আমি বললাম, যত কম লোক আমাদের সাথে মিশবে আমাদেরই তো সুবিধা। প্রায় সব পুলিশের যে সমস্যাটা ফেস করতে হয় তা হলো অফিসের খাটাখাটুনির সময় ছাড়াও দিন নেই রাত নেই সারাক্ষণ বহু শ্রেণীর মানুষ নিজেকে লতায় পাতায় আত্মীয়/পরিচিত পরিচয় দিয়ে বিচিত্র সব সমস্যা নিয়ে ফোন করে নিজের ব্যক্তিগত বহু মূল্যবান সময়টুকুর কৃচ্ছ্রসাধন করে।

সুতরাং খুব কম মানুষের সাথে মেলামেশার সবচেয়ে বড় সুবিধা হলো সময় অসময় বিবেচনা না করে কেউ এধরণের ফোন দিয়ে বলতে পারবেনা,

কাগজপত্র ছাড়া বের হয়েছি গাড়িটা ছাড়িয়ে দাও,

চোরাই মোবাইল সেট কিনে ব্যবহার করছিলাম এখন পুলিশ আমাকে থানায় ডেকে জেরা করছে আমি কোন ডাকাতি কেসে জড়িত কিনা,উদ্ধার করে দাও!

ফেরিঘাটে গাড়ির সামনে লম্বা সিরিয়াল টপকে আমার গাড়িটা আগে যাবার ব্যবস্থা করে দাও,

বউ/বর পরকীয়া করছে কিনা জানতে আমাকে একটু খোঁজখবর করে বলে দাও,

বন্ধুদের সাথে মজা করে মদ খেয়ে ছেলেটা রাস্তায় মাতলামি করছিলো। দেখতে পেয়ে পুলিশ থানায় নিয়েছে। এ যাত্রায় মানসম্মানটা টিকিয়ে দাও,

তেইশ বছরের মেয়েটা আমাদের অমতে এক বেকারের সাথে বিয়ে করে ফেলেছে,ওকে যেভাবে হোক ধরে আমাদের কাছে এনে দাও,

জমি জমার বিরোধে মারামারি করেছি কিন্তু কোন ঝামেলায় যেতে চাই না একটু উপায় বলে দাও,

হাসপাতালে প্রচুর ভিড়।বেড পাচ্ছিনা। ব্যবস্থা করে দাও,

বাস,ট্রেনের টিকিটের লাইনে বিরাট ভিড় তাই যেতে চাই না। আমারটা ম্যানেজ করে দাও,

অনলাইন শপিং করতে গিয়ে চিটেড হয়েছি।এখন ওদের শাস্তির ব্যবস্থা করে আমার টাকা উদ্ধার করে দাও,

কোটি টাকার লটারি জেতার লোভে এক লাখ টাকা প্রতারককে বিকাশ করে ফেলেছি উদ্ধার করে দাও,

বন্ধু/আত্মীয়কে ধার দেয়ার সময় কোন ডকুমেন্টস রাখিনি। এখন তারাই উল্টো পাওনাদার বনে গেছে,কি করব বলে দাও,

খেলতে গিয়ে ছেলেটা তার বন্ধুর মাথা ফাটিয়েছে,ঝামেলা থেকে বাঁচিয়ে দাও,

প্রতিবেশীর গাছের ডাল আমার উঠোনে ছায়া ফেলে গাছপালা বাড়তে দিচ্ছেনা একটু শাসিয়ে দাও,

বারান্দা থেকে তোমার ভাবির শাড়ি,পেটিকোট চোরে নিয়ে গেছে,চোর ধরে দাও,

পাশের ফ্ল্যাটের নাচ গানের শব্দে ঘুমোতে পারছিনা,এদের ধরে নিয়ে যাও,

ইত্যাদি,ইত্যাদি,ইত্যাদি….

আমার উত্তরে উনি হয়ত আহত হলেন। প্রতিত্তোরে কিছু না বলে চুপ করে রইলেন বেশ কিছুক্ষণ।

আমিও আর কোন কথা বাড়ালাম না। কেন জানি তার এই নিরবতাটুকু আমার কাছে খুব উপভোগ্য বলে মনে হলো।

মনে মনে শুধু বললাম,

যে দেশের প্রচুর সংখ্যক জনগণ আইনের প্রতি শ্রদ্ধাহীন,বোধ বুদ্ধি বিবেচনাহীন,চরম মাত্রায় অসহিষ্ণু, অধৈর্য্য, অন্যকে ফাঁসাতে মিথ্যার আশ্রয় নেয়,অল্পতে রেগে গিয়ে বড় সড় বিবাদ বাধাতে ওস্তাদ এবং নিয়ম কানুনের তোয়াক্কা না করাটাকে নিজের স্মার্টনেস ও ক্ষমতাবান হিসেবে প্রকাশ করার মাধ্যম মনে করে এবং সেই সাথে পুলিশের সাথে সখ্যতা তৈরি করে এই উদ্দেশ্য নিয়ে যে নিজের অপকর্ম থেকে তারা তাকে উদ্ধার করতে পারবে কিংবা কোন অবৈধ,অনৈতিক সুবিধার ব্যবস্থা করে দেবে তারা যদি পুলিশকে এড়িয়ে চলতে চায় তা কি এদেশের পুলিশদের জন্য মন খারাপ করার মত কোন বিষয়?

নাকি বিরাট কোন আশির্বাদ ?

add

ভালো লাগলে এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই কেটাগরির আরো খবর

বাংলাদেশে কোরোনা

সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
২,৯৪৯
৩৭
২,৮৬২
১৩,৪৮৮
সর্বমোট
১৭৮,৪৪৩
২,২৭৫
৮৬,৪০৬
৯০৪,৫৮৪
add
© 71bangla24 2020 All rights reserved. কারিগরি সহায়তা: WhatHppen
Theme Customized By BreakingNews